এখন কেমন আছেন ‘ম্যাকগাইভার’

0
96

মার্কিন টিভি সিরিজ ম্যাকগাইভার প্রচারিত হয় হাজার ১৯৮৫ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে ১৯৯২ সালের ২১ শে মে পর্যন্ত, এবিসি নেটওয়ার্ক এ । সিরিজটির নায়ক ম্যাকগাইভার অত্যন্ত বুদ্ধিমান ও নানা কৌশলে পারদর্শী একজন সাবেক সিক্রেট এজেন্ট।

 

ম্যাকগাইভার কম, রিচার্ড ডিন অ্যান্ডারসন বেশি- পর্দায় এই কিঞ্চিৎ অচেনা নামের লোকটা নিজের নাম ছাপিয়ে হয়ে উঠেছিল সেই চরিত্র । তাই তার নাম বরং ম্যাকগাইভার ই। ২৩ জানুয়ারি ছিল ম্যাকগাইভার তথা অ্যান্ডারসনের জন্মবার্ষিকী। ২০২০সালে ৬৯ বছর পেরিয়ে পা রাখলেন ৭০ এ। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে টেলিভিশনে চেনা সেই ম্যাকগাইভার বদলে গেছেন বেশ খানিকটা। ওজন বেড়েছে শরীরের। তিনি এখন ম্যাকগাইভার কম, রিচার্ড ডিন অ্যান্ডারসন বেশি।

 

এই শিল্পী তাঁর ক্যারিয়ার করেছেন অভিনয়শিল্পী হিসেবেই। নানা সিরিয়াল এবং সিনেমায় অভিনয় করেছেন। কিন্তু দুনিয়াজোড়া খ্যাতিটা তার ‘ম্যাকগাইভার’ সিরিজ থেকেই এসেছে। ম্যাকগাইভারের প্রতিটি পর্বের আলাদা নাম ও আলাদা গল্প থাকতো। প্রতিটি পর্বে থাকতো নতুন নতুন বান্ধবী ও। ম্যাকাইভারের অধিকাংশ কৌশল থাকতো বিজ্ঞানের বিভিন্ন সূত্রের ভিত্তিতে কখনো রসায়নের, কখনো পদার্থবিদ্যার। মার্কিন টেলিভিশন এর পাশাপাশি আরও বিভিন্ন দেশে জনপ্রিয়তা পায় এই টিভি সিরিজ। দক্ষিণ এশিয়ার দেশ বাংলাদেশ ও এই সিরিজ মূল ইংরেজি ভাষাতেই তুমুল জনপ্রিয় ছিল।

 

রিচার্ড ডিন অ্যান্ডারসন ১৯৫০ সালের ২৩ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা মিনিয়াপোলিস জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বাবা স্টুয়ার্ট অ্যান্ডারসন ও মা জ্যাকুলিন কাটার এর চার সন্তানের মধ্যে সবার বড়। তার বড় হয়ে ওঠা মিনেসোটার রোজভ্যালিতে। সেখানকার আলেক্সজান্ডার র‍্যামসি হাই স্কুলে লেখাপড়া করেন তিনি। শৈশবে হকি খেলোয়াড় হতে চেয়েছিলেন ম্যাকগাইভার। একবার হাত ভেঙ্গে গেলে সেই আশা অপূর্ণ থেকে যায়। এরপর তিন মাসের মধ্যেই অপর হাতটি ভেঙ্গে গেলে হকির স্বপ্ন সেখানেই ভেঙ্গে চুরমার হয়ে যায়।

 

অনেকটা সময় এখানে সেখানে ঘুরে শেষ পর্যন্ত ২৬ বছর বয়সে অভিনয়ে নিয়মিত হন। ৩৫ বছর বয়সে ম্যাকগাইভার সিরিজে অ্যাঙ্গাস ম্যাকগাইভার চরিত্রে অভিনয় করে তারকাখ্যাতি পান রিচার্ড।

 

সর্বশেষ সিনেমা ও অন্যান্য- তার অভিনীত সর্বশেষ সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছিল ২০১০ সালে। তবে সিনেমা না করলেও টিভি সিরিজে অভিনয় আর প্রযোজনার সঙ্গে নিজেকে যুক্ত রেখেছিলেন। নির্বাহী প্রযোজকও ছিলেন বেশ কয়েকটি টিভি সিরিজে। তিনি শুধু অভিনয় এ নিজেকে সীমাবদ্ধ রাখেননি। বিভিন্ন  সিরিজে তাঁর গাওয়া গানও ব্যবহার করা হয়েছে।

 

ম্যাকগাইভার এর সামাজিক কর্মকান্ড- সমাজের প্রতি দায়বদ্ধতা থেকে তিনি রয়েছেন নানা ধরনের দাতব্য কাজের সঙ্গে যুক্ত । পানি দূষণ রোধে কাজ করছেন। পরিবেশ রক্ষায় বিভিন্ন ধরনের অলাভজনক সংস্থার সঙ্গে তিনি যুক্ত । কাজ করছেন সমাজের অবহেলিত ও অনাথ শিশু কিশোরদের নিয়ে । স্পেশাল অলিম্পিকেও রয়েছে তার অবদান। তাছাড়া অসুস্থ ও মৃত্যু পথযাত্রী শিশু-কিশোরদের জন্য মেক-এ-উইশ ফাউন্ডেশনে ও তিনি কাজ করছেন নিরলস ভাবে।

 

চিরকুমার ম্যাকগাইভার এর অবসর- ব্যক্তিগত জীবনে বিয়ে করেননি তিনি। তবে বান্ধবী ছিল না, তা নয়। ছিল একাধিক বান্ধবী। তাদের মধ্যে কোন এক বান্ধবীর ঘরে রয়েছে ২০ বছর বয়সী একটি মেয়ে। অবসর সময় তিনি মেয়ের সাথে কাটাতে বেশি পছন্দ করেন।